১১ নভেম্বর ঐতিহাসিক নওগাঁ দিবস, শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ।। news10tv.com

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : আরিফুল ইসলাম ।

0 ৫৭

 

বুধবার(১১ নভেম্বর) ঐতিহাসিক নওগাঁ দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্তিযুদ্ধে উত্তরবঙ্গের বেসরকারি সাব-সেক্টর কমান্ড পলাশডাঙ্গা যুবশিবিরের মুক্তিযোদ্ধারা পাক হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসরদের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বড় যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়।

পলাশডাঙ্গা যুবশিবিরের সর্বাধিনায়ক গাজী সোহরাব আলী সরকার জানান ১৯৭১ এর ১০ নভেম্বর বুধবার রাতে পলাশডাঙ্গা যুব শিবিরের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আব্দুল লতিফ মির্জার নেতৃত্বে পাঁচ শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা বিশ্রামের জন্য সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার নওগাঁ বাজার এলাকায় অবস্থান নেয়। খবর পেয়ে পরদিন ১১ নভেম্বর বুধবার ভোরে পাক বাহিনী ও তাদের এদেশীয় দোসররা মুক্তিযোদ্ধাদের ঘিরেফেলে
এ সময় মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিরোধে গড়ে তুললে শুরু হয় গেরিলা যুদ্ধ। ভোর পাঁচটা থেকে শুরু হয়ে বিকেল তিনটা পর্যন্ত টানা ১০ ঘণ্টাব্যাপী যুদ্ধে প্রা আড়ইশ’ পাকসেনা ও দেড়শতাধিক রাজাকার নিহত হয়।
এক পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়ে পালিয়ে যায় পাক সেনারা। এ সময় একজন ক্যাপ্টেনসহ ৮ জন পাকিস্তানি সেনা সদস্য অস্ত্রসহ ধরা পড়ে পলাশডাঙ্গা যুব শিবিরের গেরিলা মুক্তিযোদ্ধাদের হ‍াতে।


তবে পলাশডাঙ্গা যুবশিবিরের যোদ্ধাদের প্রাণপন লড়াই ও কৌশলে পাক সেনারা পরাজিত হলেও দু’জন মুক্তিযোদ্ধা সামান্য আহত হওয়া ছাড়া তাদের আর কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।
নওগাঁ যুদ্ধে পরাজয়ের মাধ্যমেই মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানিদের পরাজয়ের পটভূমি রচিত হয়।
দিবসটি উপলক্ষে বুধবারে সকালে শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ, রেলী ও বিকেলে তাড়াশের নওগাঁ শাহ শরীফ জিন্দানী ডিগ্রি কলেজ মাঠে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা মিলন মেলার আয়োজন করা হয়েছে।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সিরাজগঞ্জ-৩ রায়গঞ্জ-তাড়াশ আসনের সংসদ সদস্য . ড:আব্দুল আজিজ এমপি। সাবেক এমপি গাজী ম.ম. আমজাদ হোসেন মিলন ।

এছাড়াও সিরাজগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার গাজী শফিকুল ইসলাম শফি, পলাশডাঙ্গা যুব শিবিরের সহকারী পরিচালক অ্যাডভোকেট বিমল কুমার দাস, সর্বাধিনায়ক গাজী সোহরাব আলী ,গাজী কাসেম আলী মাষ্টার, গাজী খন্দকার আব্দুস সামাদ বক্তব্য রাখবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.